নোয়াখালীতে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষে আহত-১৫,সমাবেশ পন্ড!


এফ এম শাহ রিপন,স্টার রিপোর্টারঃ
নোয়াখালীতে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা ও মুক্তির দাবিতে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশ চলাকালে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে মিছিল চলাকালে লাঠিচার্জে অনন্ত ১৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ বিএনপির তিন কর্মীকে আটক কয়েছে।

শনিবার ২৩ নভেম্বর ১১টার দিকে প্রেসক্লাবের সামনে ও শহরের বিভিন্ন স্থানে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।পুলিশি হামলার প্রতিবাদে পরে দুপুরে জেলা শহরের রশিদ কলোনীতে সাবেক সংসদ সদস্য মো. শাহজাহানের বাসায় সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।জেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম হায়দার বিএসসির সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্যাহ আল নোমান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল ১১টা থেকে নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপির নেতাকর্মীরা খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে সমবেত হয় এবং পুলিশ মিছিলে বাঁধা দেয়। মুহূর্তের মধ্যে পুলিশ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। পরে পুলিশ লাঠিচার্জ করে।

বিএনপির নেতারা জানান, পুলিশ বিনা উস্কানিতে তাদের মিছিলে বাধা দেয় এবং নেতাকর্মীদের লাঠি চার্জ করে। এতে তাদের ১৫ থেকে ২০জন নেতাকর্মী আহত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্যাহ আল নোমান, জেলা বিএনপির
সভাপতি গোলাম হায়দার, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুর রহমান, জেলা যুবদলের সভাপতি মঞ্জুরুল আজিম সুমন ও সাধারণ সম্পদাক নুরুল আমিন খানসহ প্রমুখ।

সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.নবীর হোসেন জানান, সমাবেশ করার কোনো অনুমতি ছিল না বিএনপির। কিন্তু হঠাৎ মিছিল থেকে বিএনপির নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছোড়ে, পরে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করেছে মাত্র। এতে অনন্ত তিন পুলিশ আহত হয়েছে।
Powered by Blogger.